1. tanvirinternational2727@gmail.com : NewsDesk :
  2. hrbangladeshbulletin@gmail.com : News Room : News Room
  3. 25.sanowar@gmail.com : Sanowar Hossain : Sanowar Hossain
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৬:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সীমান্তে হতাহতের ঘটনা শূন্যে নামিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে-শেখ হাসিনা ইতিহাস গড়ে সেমিতে আফগানিস্তান প্রথমবারের মতো ঢাকা রেঞ্জের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত ঢালাওভাবে পুলিশকে নিয়ে সমালোচনা করা উচিত না- সালমান এফ রহমান উচ্চশিক্ষায় বিদেশগামী শিক্ষার্থীদের মূ্ল্যবোধে স্থির থাকার পরামর্শ ‘জল্লাদ’ শাহজাহান আর নেই দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞার নির্দেশ পেলে ব্যবস্থা-আইজিপি মেধাবী শিক্ষার্থীদের নিকট উপবৃত্তি ও টিউশন ফি বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী চালু হচ্ছে রাজশাহী-কলকাতা ট্রেন সার্ভিস আওয়ামী লীগের ইতিহাস সংগ্রামের ইতিহাস

বিস্ফোরণে বিধ্বস্ত আওয়ামীলীগ কার্যালয়!

  • সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জুন, ২০২৪
  • ১৬

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি 

টাঙ্গাইলে বুধবার রাত দেড়টার দিকে গ্যাসলাইনের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণের ঘটনায় বিধ্বস্ত হয়েছে টাঙ্গাইল জেলা  আওয়ামীলীগের কার্যালয়। এতে অফিসের আসবাবপত্র, কম্পিউটার, এসি, টেলিভিশন-সহ মূল্যবান জিনিসপত্র লন্ডভন্ড হয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানান, ওই রাতেই টাঙ্গাইল শহরের মেইন রোড এলাকায় অবস্থিত আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের পাশের বহুতল ভবন পরশমনিতে বজ্রপাতের কারনে আগুন লেগে যায়। শহরের প্রধান সড়কটিতে উন্নয়ন কাজ চলমান। সড়ক প্রশস্থকরন কাজের জন্য মাটি খুড়তে গিয়ে মাটির নিচে থাকা তিতাস গ্যাসের লাইনে লিকেজ সৃষ্টি হয়। এতেই গ্যাস জমা হয়ে আওয়ামীলীগ  অফিসে বিস্ফোরণ ঘটে আগুন ধরে যায়।

পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় পরশমনি ভবনের মূল ফটকের তালা ভেঙ্গে আবাসিকে থাকা পরিবারদেরকে নিরাপদে বের করে আনা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গ্যাস বিস্ফোরণ হয়ে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বিস্ফোরণের পর আশেপাশের কয়েকটি দোকান ও ভবনে ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়ে। এতে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পরে।

খবর পেয়ে টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম ও দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট খোরশেদ আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

স্থানীয়দের অভিযোগ, ঠিকাদারের অসচেতনতার কারনে তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন লাইনের প্রধান পাইপ ফেটে যায়। এরপর প্রচন্ড বেগে গ্যাস আওয়ামী লীগের অফিসের দরজার নিচ দিয়ে ভিতরে প্রবেশ করে। অফিস বন্ধ থাকায় গ্যাসের চাপে ৫ টি এসি,  ১৬টি ফ্যান, ২টি কম্পিউটার, চেয়ার-টেবিল ও আলমারিসহ অধিকাংশ মালামাল ধ্বংস হয়ে যায়। 

টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট খোরশেদ আলম বলেন, রাস্তার উন্নয়ন কাজের সময় এস্কোবেটরেট আঘাতে তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন পাইপ ফেটে গ্যাস মেইন রোডে ছড়িয়ে যায়। বিভিন্ন ভবন ও আমাদের আওয়ামী লীগ অফিসে প্রবেশ করে এ দূর্ঘটনা ঘটে। তিনি আরও বলেন, অফিস ব্যবহারের উপযোগী করত সংস্কার করতে হবে এবং এর দায় ঠিকাদারকেই নিতে হবে।  

টাঙ্গাইল সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী আব্দুল মোমেন বলেন, গ্যাস বিস্ফোরনের ঘটনায় ঠিকাদারের ত্রুটি আছে কি না সেটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে । যদি ক্রটি পাওয়া যায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

টাঙ্গাইল জোনের তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানির ম্যানেজার প্রকৌশলী খোরশেদ আলম বলেন, খবর পাওয়ার সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগীতায় তিতাসের টীম সঞ্চালন লাইনটি বন্ধ করে দেয়। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের অন্যান্য খবর
©বাংলাদেশবুলেটিন২৪