1. tanvirinternational2727@gmail.com : NewsDesk :
সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ১২:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
কুবিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরু ময়মনসিংহের ত্রিশালে ডোবা থেকে কিশোরের মরদেহ উদ্ধার শরণখোলা প্রেসক্লাবের সামনে শিক্ষক শহিদুলের মুক্তি ও মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে শিক্ষকদের মানববন্ধন এডিপি পক্ষ থেকে নন্দীরগাঁও ইউনিয়নেলক্ষাধিক টাকার ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ ত্রিশালে পাশে দাঁড়াও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের বৃক্ষ রোপন ময়মনসিংহে ভয়াবহ আগুনে পুড়ে গেলো ১০ ঘর চার নম্বর বিয়ে?’..ট্রোলড শ্রাবন্তী কুমিল্লার দেবীদ্বার পৌর মার্কেট মালিক সমিতির কমিটি গঠন গফরগাঁওয়ের রসুলপুরের দুই বোনকে ভারতে পাচারকারী চক্রের সদস্য গ্রেপ্তার ময়মনসিংহ বিভাগীয় সদর দপ্তরের জায়গা পরিদর্শনে শফিকুর রেজা বিশ্বাস

টাঙ্গাইলে নৌকা’র এজেন্টের আঙ্গুল কর্তন, আ.লীগ সভাপতি বহিষ্কার

  • সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ মে, ২০২১
  • ৪৬৫


হাদী চকদার, টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধিঃ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে ভূঞাপুর পৌর কাউন্সিলর মোঃ আনোয়ার হোসেন কে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। 
গত সোমবার (৩ মে) ভূঞাপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ আব্দুল বাছিদ মন্ডল ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ খাইরুল ইসলাম তালুকদার বাবলুর স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে তাকে (আনোয়ার) এ বহিষ্কারাদেশ প্রদান করা হয়। 
তিনি পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের (কুতুবপুর) বর্তমান কাউন্সিলর‌ ও একই ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন।
কাউন্সিলর কে প্রদানকৃত বহিষ্কারাদেশে বলা হয়়, গত ৩০শে জানুয়ারি মোঃ আনোয়ার হোসেন ভূঞাপুর পৌরসভা নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের নির্বাচনী কেন্দ্রে নিজ স্বার্থ হাসিল করার জন্য নৌকা প্রতিকের এজেন্ট সুচি বেগম ও দলের অন্যান্য নেতাকর্মীদের উপর অতর্কিত হামলা করেন এবং একই সাথে নৌকা প্রতীকের এজেন্ট সূচী বেগমকে নির্বাচনী বুথ থেকে টেনে বের করে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ডান হাতের বৃদ্ধা আঙ্গুল কেটে ফেলেন। যাহা বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও জাতীয় সংবাদ পত্রে প্রচার করে এবং সকলের দৃষ্টি গোচর হয়। ইহাতে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ হয়। সে কারণে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সেই সাথে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক পরিচয়সহ দলীয় সকল পরিচয় থেকে তাকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।
উল্লেখ্য যে, গত ৩০ জানুয়ারি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ চলছিল উপজেলার কুতুবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিচ্ছিলেন নারী-পুরুষ ভোটাররা। নিজের অবস্থা শোচনীয় দেখে জাল ভোট দিতে যান কাউন্সিলর প্রার্থী আনোয়ার হোসেনের লোকজন।
অপর কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকরা বাধা দিলে বিপত্তি বাধে, শুরু হয় সংঘর্ষ। লাঠি হাতে নিয়ে নেতৃত্ব দেন সদ্য বিজয়ী কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। আঙুল কেটে ফেলা হয় নৌকা প্রতীকের এজেন্ট সূচী বেগমের‌।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের অন্যান্য খবর
©বাংলাদেশবুলেটিন২৪